বিমানের অচলাবস্থা চলছেই

biman aircraft
Image caption বিমান

অনুপস্থিত পাইলটদের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে কাজে যোগ দেবার সময়সীমা বেঁধে দেবার পর বাংলাদেশের জাতীয় বিমান সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ আজ বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তার নোটিশ দিয়েছে৻

একযোগে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ৫০ জনের মতো পাইলট বুধবার কাজে যোগ দেননি। আজ সকালে কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে পাইলটদের নোটিশ দেবার পর সকাল ১১টা থেকে ৪৮ ঘন্টার ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে৻

পাইলটদের সংগঠন বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পাইলট অ্যাসোসিয়েশন বা বাপা এ পরিস্থিতিতে তাদের করণীয় ঠিক করতে বৃহস্পতিবার সারাদিনে কয়েকদফা বৈঠক করেছে৻ রাতেও এক দফা বৈঠক হয়৻

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক বাসিত মাহতাব বিবিসিকে বলেন, তারা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান চাইলেও কর্তৃপক্ষ নানা পদক্ষেপ নিয়ে তাদেরকে অনড় অবস্থানের দিকে ঠেলে দিচ্ছে৻ তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষ কয়েকজন পাইলটের বিরুদ্ধে নেয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থা প্রত্যাহার করলেই আলোচনা হতে পারে৻

পাইলটদের কাজে অনুপস্থিতির ফলে বিমানের নিয়মিত ফ্লাইটগুলো ব্যাপকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে৻ তবে হ্জ্জ ফ্লাইটগুলো চলছে৻

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকিউল ইসলাম, কর্তৃপক্ষ কোন শর্তের ভিত্তিতে আলোচনা করতে রাজি নয়৻ পাইলটরা ৪৮ ঘন্টার সময়সীমার মধ্যে কাজে ফিরে না এলে বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে৻

এ পরিস্থিতির কারণে আজ বিমানের বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বাতিল করা হয়৻ তবে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলছেন ফ্লাইটের সময়সুচি অদলবদল করে তারা পরিস্থিতি সামাল দেবার চেষ্টা করছেন৻

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের পরিচালনা বোর্ড এক জরুরী বৈঠকে বসে এবং পাইলটদের কাজে যোগ দেবার জন্য ৪৮ ঘন্টা সময় বেঁধে দেয়া হয়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স মঙ্গলবার রাতে চারজন পাইলটকে ফ্লাইট সংক্রান্ত সব কর্তব্য থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেয় এবং একজন পাইলটকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়৻ গত কয়েকদিন ধরেই পাইলটদের সঙ্গে ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের দ্বন্দ্ব চলেছে, অবসর গ্রহণের বয়সসীমা বাড়ানো সহ বেশ কিছু ইস্যুতে৻ পাইলটরা ইতিমধ্যেই চুক্তি অনুযায়ী তাঁদের মাসে যে ৭০ ঘন্টা কাজ করার কথা তার বাইরে বাড়তি সময় কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছেন৻

বিমান ব্যবস্থাপনা বোর্ডের একজন সদস্য এবং বাংলাদেশ সরকারের বেসামরিক বিমান মন্ত্রণালয়ের সচিব, শফিক আলম মেহেদী বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, ৫ জন পাইলটকে তারা ফ্লাইট ডিউটি থেকে সাময়িকভাবে যে অব্যাহতি দিয়েছেন তা তারা বিমানের পরিচালনা নীতিমালা মেনে এবং পাইলটদের সঙ্গে চুক্তির শর্তের ভেতরে থেকেই করেছেন৻

‘বিমান ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে পাইলটদের যে চুক্তি হয়েছে সে চুক্তির আলোকে কর্তৃপক্ষ পাইলটদের দাবিদাওয়াগুলোকে যুক্তিসঙ্গত মনে করছেন না৻

মিঃ মেহেদী বলেছেন বিমান কর্তৃপক্ষ পাইলটদের দাবিতে সম্মত না হওয়ায় কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অমান্য করে পাইলটরা সাংবাদিক সম্মেলন করায় কর্তৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছে৻ তিনি বলেছেন পাইলট ও বিমান কর্তৃপক্ষের মধ্যে একটি বিষয় নিয়ে আদালতে একটি মামলাও বিচারাধীন রয়েছে৻

তিনি বলছেন আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকাকালীন এধরনের কার্যক্রম নেওয়া যায় না৻